শহিদ শেখ আবু নাসেরের সহধর্মিনী বেগম রাজিয়া নাসেরের ইন্তেকালে খুবি উপাচার্য ও উপ-উপাচার্যের গভীর শোক

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভ্রাতা শহিদ শেখ আবু নাসেরের সহধর্মিনী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চাচী, সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন, সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দীন জুয়েল মাতা, সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময় দাদী বেগম রাজিয়া নাসের আজ রাতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তকাল করেন (ইন্না লিল্লাহে...রাজিউন)। 

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বেগম রাজিয়া নাসেরের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এক শোক বার্তায় তিনি বলেন বঙ্গবন্ধুর পরিবারের তিনি ছিলেন সর্বজন শ্রদ্ধেয় অভিভাবকতুল্য। ১৯৭৫ এর পনেরই আগস্টের কালো রাতে সপরিবারে বঙ্গবন্ধুর নৃশংস হত্যান্ডের পর থেকে দীর্ঘ সময় নানা প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও পরিবারের সকলকে তিনি ছায়ার মতো আগলে রেখেছিলেন। তাঁর মুগ্ধ ব্যবহার, অতিথি পরায়নতা স্মরণযোগ্য। তাঁর কাছে যেই গেছেন বয়স ভেদে তাঁকে সন্তানের মতো, নাতি-নাতনীর মতো আপন করে দেখেছেন। উপাচার্য বলেন তাঁর মুত্যুতে আমরা একজন প্রকৃত অভিভাবক হারালাম। তিনি মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সকল সদস্যের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা অপর এক পৃথক শোক বার্তায় বেগম রাজিয়া নাসেরের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করে অনুরূপ বিবৃতি দিয়েছেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুসও অনুরূপ শোক প্রকাশ করেছেন।